জুলাই ২৩, ২০২৪ - ১০:৪৭ অপরাহ্ণ
Homeকর্পোরেট-অর্থ ও বাণিজ্যকর্পোরেট সংবাদলাভজনক অবস্থানে পৌঁছালো শপআপ-এর এফএমসিজি ডিস্ট্রিবিউশন ইউনিট

লাভজনক অবস্থানে পৌঁছালো শপআপ-এর এফএমসিজি ডিস্ট্রিবিউশন ইউনিট

spot_img

কর্পোরেট ডেস্ক: বাংলাদেশের বৃহত্তম বিটুবি কমার্স প্ল্যাটফর্ম শপআপ-এর এফএমসিজি ডিস্ট্রিবিউশন ইউনিট ‘মোকাম সিপিজি’ ২০২৩-২৪ অর্থবছরের প্রথম এগারো মাসে ২০ কোটি টাকার অপারেটিং প্রফিট ঘোষণা করেছে।

এরই মাধ্যমে মোকাম-এর কৌশলগত আর্থিক ব্যবস্থাপনা এবং কর্মক্ষমতা প্রতিফলিত হয়েছে। জুলাই ২০২৩ থেকে মে ২০২৪ পর্যন্ত ‘মোকাম সিপিজি’ ১,৮০০ কোটি টাকা রাজস্ব আয় করেছে এবং ২০২৪ অর্থবছরের শেষ নাগাদ ২,০০০ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে বলে আশা করা যাচ্ছে, অর্থাৎ, বছরে বৃদ্ধির পরিমাণ ৭০ শতাংশেরও বেশি। মোকামের আর্থিক কার্যক্রমে প্রথমবারের মতো পিবিটি (প্রফিট বিফোর ট্যাক্স) পজিটিভ হয়েছে, যা ২০২৪ অর্থবছরের শেষ দিকে ১৭০ শতাংশ বৃদ্ধির আশা করা যাচ্ছে। শপআপ দক্ষিণ এশিয়ান অঞ্চলের অন্যতম বিটুবি প্রতিষ্ঠান, যা এত অল্প সময়ের মধ্যে পিবিটি পজিটিভিটিতে পৌঁছেছে।

এই অর্জনগুলো সম্ভব হয়েছে ডাটা-নির্ভর সিদ্ধান্ত গ্রহণের কারণে, যার ফলে সাধারণ বন্টন সংস্থার তুলনায় কোম্পানির গুদামজাতকরণের সময়কাল ৩৫% বেশি কার্যকর। এছাড়াও, কোম্পানি শিল্প-নির্দিষ্ট শীর্ষ ট্যালেন্টদের সুবিধা পাচ্ছে, যা তাদের সমঝোতা সক্ষমতা ও কৌশলগত পরিকল্পনাকে আরও উন্নত করে।

এছাড়া, প্রতিষ্ঠানের গ্রস মার্জিন ১৯৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে, যা বিগত বছরের তুলনায় তিনগুণ। প্রতিষ্ঠানের দীর্ঘমেয়াদী বৃদ্ধির কৌশল অনুযায়ী খরচ ব্যবস্থাপনা ও দক্ষ কার্যক্রমের ফলে এ পরিমাণ গ্রস মার্জিন অর্জন সম্ভব হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে মোকাম সিপিজি-এর সিইও নাজির আহমেদ বলেন, “আমরা চলতি অর্থবছরের শেষ নাগাদ প্রফিট আফটার ট্যাক্স প্রফিট্যাবিলিটিতে পৌঁছে যাবো বলে আসা করছি। এই অর্জনটি আমাদের পুরো টিম ও পার্টনারদের নিরলস পরিশ্রম ও প্রবল ইচ্ছাশক্তিকে প্রতিফলিত করে।”

বর্তমানে এসিআই, বাংলালিংক, এলিট, গ্রামীণফোন, হিমালায়া, জেটিআই, লাফজ, ম্যারিকো, মেঘনা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ, নিউজিল্যান্ড ডেইরি, অলিম্পিক, রেকিট, রেমিডিস্ট, রবি, আরএসপিএল, স্কয়ার ফুড অ্যান্ড বেভারেজেস লিমিটেড, স্কয়ার টয়লেট্রিজ লিমিটেড, সিনজেন্টা, টিকে এবং ইউনিলিভার বাংলাদেশ-এর মতো প্রধান স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ডগুলোর পণ্যের ডিস্ট্রিবিউটর হিসেবে মোকাম সিপিজি নিয়োজিত আছে, এবং দেশব্যাপি তারা ২০৪ টিরও বেশি ডিস্ট্রিবিউশন সেন্টার পরিচালনা করছে।

শপআপ তাদের কার্যক্রম বৃদ্ধির পাশাপাশি স্থানীয় সাপ্লাই চেইনকে শক্তিশালী করবার জন্য কাজ করে যাচ্ছে। মোকাম-এর এই অর্জন ভবিষ্যত প্রবৃদ্ধিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে এবং এফএমসিজি ডিস্ট্রিবিউশন সেক্টরে মার্কেট লিডার হিসেবে শপআপ-এর অবস্থানকে আরও শক্তিশালী করবে

অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ