জুলাই ১৬, ২০২৪ - ১২:৩৯ পূর্বাহ্ণ
Homeখেলাধূলাউরুগুয়েকে কাঁদিয়ে কোপার ফাইনালে কলম্বিয়া

উরুগুয়েকে কাঁদিয়ে কোপার ফাইনালে কলম্বিয়া

spot_img

স্পোর্টস ডেস্ক: কলম্বিয়ার কাছে হেরে সেমিতেই শেষ হলো রেকর্ড ১৫ বারের চ্যাম্পিয়ন উরুগুয়ের কোপা অভিযান।বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) ব্যাংক অব আমেরিকা স্টেডিয়ামে ১-০ গোলে জয় পায় কলম্বিয়া। ম্যাচের একমাত্র গোলটি আসে জেফারসন লারমার পাঁ থেকে। এই জয়ে ২৩ বছর পর কোপার ফাইনালে রদ্রিগেজের দল।

দীর্ঘ ১৩ বছর পর কোপা আমেরিকার ফাইনালে খেলার সুযোগ এসেছিল উরুগুয়ের সামনে। কলম্বিয়ার সামনে ছিল ২৩ বছর পর ফাইনাল খেলার। অবশেষে প্রথমার্ধে করা জেফারসন লার্মার একমাত্র গোলে উরুগুয়েকে কাঁদিয়ে ২৩ বছর পর কোপার ফাইনালে খেলার কৃতিত্ব অজর্ন করলো কলম্বিয়া। যেখানে তাদের জন্য আগে থেকেই অপেক্ষা করছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) ব্যাংক অব আমেরিকা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় ভোর ৬টায় শুরু হয় ম্যাচটি। ম্যাচের শুরু থেকেই এদিন শক্তি প্রদর্শনে নামে দু’দল। ৬ হলুদ কার্ড, ১ লাল কার্ড আর ২৪ ফাউলের ম্যাচের ফল নির্ধারণ করলেন জেফারসন লারমা। পুরো আসরে দারুণ ছন্দে থাকা এই মিডফিল্ডারের একমাত্র গোলে ২০২৪ কোপা আমেরিকার ফাইনালে কলম্বিয়া।

এদিন কোপার দ্বিতীয় সেমিফাইনালে কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিলকে হারানো উরুগুয়ে ১৩ বছর পর ফাইনালের টিকিট নিশ্চিতের লড়াইয়ে মাঠে নেমেছিল কলম্বিয়ার বিপক্ষে। জেমস রদ্রিগেজদের বিপক্ষে ম্যাচটিতে মুহূর্মুহু ছড়িয়েছে উত্তাপ, দুই দলই ফাউল করায় বারবার কার্ড দেখাতে হয় রেফারিকে।

দুই দলের ম্যাচটিতে প্রথমে গোলের দেখা পেতে কলম্বিয়াকে অপেক্ষা করতে হয়েছে ম্যাচের ৩৯তম মিনিট পর্যন্ত। জেমস রদ্রিগেজের নেয়া কর্নার থেকে হেডে গোল করেন জেফারসন লারমা। এটা এবারের আসরে রদ্রিগেজের পঞ্চম অ্যাসিস্ট।

তবে গোল পেলেও কলম্বিয়ার জন্য প্রথমার্ধটা সুখকর হয়নি শেষ মুহূর্তে গিয়ে। ড্যানিয়েল মুনোজ প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড়কে কনুই দিয়ে আঘাত করলে রেফারি তাকে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখান। ৩১ মিনিটে একবার হলুদ কার্ড দেখেছিলেন তিনি। ফলে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয় তাকে। এতে করে প্রথমার্ধেই ১০ জনের দলে পরিণত হয় কলম্বিয়া।

দ্বিতীয়ার্ধে পুরোটাই আধিপত্য দেখায় উরুগুয়ে। আক্রমণের পসরা সাজিয়ে বসে নুনেজ-দে লা ক্রুজরা। তবে বাজে ফিনিশিংয়ে কারনে গোলের দেখা পায়নি উরুগুয়ে। ম্যাচের ৭১ মিনিটে খুব সহজ এক সুযোগ মিস করেন লুইস সুয়ারেজ। এই গোল পেলে খেলা টাইব্রেকারে গড়াত। এদিকে কলম্বিয়াও নিশ্চিত গোলের সুযোগ মিস করেছে। উরুগুয়ের গোলরক্ষককে একা পেয়েও দুইবার গোল করতে ব্যর্থ হয়েছে কলম্বিয়া।

শেষ পর্যন্ত এক গোলে জয় নিয়েই ফাইনালে জায়গা করে নেয় তারা। এর ফলে ২৩ বছর পর কোপার ফাইনালে জায়গা করে নিল কলম্বিয়া। ২০০১ সালে ফাইনালে উঠে মেক্সিকোকে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল তারা।

বাংলাদেশ সময় আগামী সোমবার (১৫ জুলাই) মায়ামির হার্ড রক স্টেডিয়ামে শিরোপা নির্ধারণী আর্জেন্টিনার মুখোমুখি হবে তারা। এর আগে একবারই দুই দলের দেখা হয়েছিল কোপা আমেরিকার ফাইনালে। ১৯৯১ সালে আসরের ফাইনাল রাউন্ডের সেই ম্যাচে জয়ের মুখ দেখে আলবিসেলেস্তেরা। সেবার কোপার শিরোপাও জেতে তারা। কোপা আমেরিকার ইতিহাসে উরুগুয়ের পাশাপাশি ১৫টি শিরোপা জয়ের রেকর্ড আছে আর্জেন্টিনারও। পরপর দুই ম্যাচে প্রতিযোগীতার সফলতম দুই দলকে হারিয়ে শিরোপা জিততে পারলে দারুণ এক ইতিহাসই রচনা করবেন রদ্রিগেজ-ডিয়াজরা।

অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ