জুলাই ২৪, ২০২৪ - ২:৫৬ পূর্বাহ্ণ
Homeআন্তর্জাতিকব্রিটেনের নগরমন্ত্রী হলেন টিউলিপ সিদ্দিক

ব্রিটেনের নগরমন্ত্রী হলেন টিউলিপ সিদ্দিক

spot_img

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যুক্তরাজ্যের নগরমন্ত্রী হয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতনি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট বোন শেখ রেহানার মেয়ে টিউলিপ সিদ্দিক। তিনি এই দপ্তরের আর্থিক তত্ত্বাবধায়কেরও দায়িত্ব পালন করবেন।

মঙ্গলবার (৯ জুলাই) ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। খবর রয়টার্স।

গত সপ্তাহে ব্রিটেনে অনুষ্ঠিত পার্লামেন্ট নির্বাচনে রেকর্ড জয় পায় লেবার পার্টি। ১৪ বছর ধরে ক্ষমতায় থাকা কনজারভেটিভ পার্টিকে হারিয়ে প্রধানমন্ত্রী হন কিয়ার স্টারমার। এ দলের হয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ৪১ বছর বয়সী টিউলিপ সিদ্দিক। তিনি ২০২১ সাল থেকে লেবার পার্টির হয়ে আর্থিক সেবা শিল্পের নীতি বাস্তবায়নে কাজ করেছেন।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টিউলিপ সিদ্দিক কনজারবেটিভ সরকারের অধীনে দায়িত্ব পালন করা বিম আফোলামির স্থলাভিষিক্ত হবেন। তিনি এইচএসবিসি ব্যাংকের সাবেক কর্মকর্তা ছিলেন।

টিউলিপ সিদ্দিক ১৯৮২ সালে লন্ডনের মিচামে সেন্ট হেলিয়ার হাসপাতালে জন্মগ্রহণ করেন। তার শৈশব ছিল বৈচিত্র্যময়। শৈশবে তিনি বাংলাদেশ, ভারত ও সিঙ্গাপুরে থেকেছেন। পরে কিশোর বয়সে লন্ডনে স্থিত হন এবং সেখানেই পড়ালেখা করেন। লন্ডনের কিংস কলেজ থেকে পলিটিকস, পলিসি ও গভর্নমেন্ট বিষয়ে তার স্নাতকোত্তর ডিগ্রি রয়েছে।

বিবিসির তথ্য অনুযায়ী, তিনি ২৩,৪৩২ ভোট (৪৮ দশমিক ৩ শতাংশ) পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ প্রার্থী ডন উইলিয়ামস ৮,৪৬২ ভোট পেয়েছেন।

টিউলিপ সিদ্দিক যুক্তরাজ্য সরকারের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। এরমধ্যে শিশু ও প্রাথমিক শিক্ষাবিষয়ক শ্যাডো মন্ত্রী এবং শ্যাডো অর্থনৈতিক সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন উল্লেখযোগ্য।

২০১৯ সালে টিউলিপ সিদ্দিক হ্যাম্পস্টেড এবং কিলবার্নের এমপি ছিলেন। একই বছরে তিনি ইভনিং স্ট্যান্ডার্ডের প্রগ্রেস ১০০০ তালিকায় লন্ডনের সবচেয়ে প্রভাবশালী রাজনীতিবিদদের মধ্যে স্থান পেয়েছিলেন।

২০১৫ সালের মে মাসে তিনি প্রথমবার লন্ডনের হ্যাম্পস্টেড এবং কিলবার্ন থেকে ব্রিটেনের হাউস অব কমন্সে নির্বাচিত হন এবং তার প্রথম ভাষণের মাধ্যমে বৈশ্বিক মনোযোগ আকর্ষণ করেন।

অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ