আন্তর্জাতিক তথ্য-প্রযুক্তি

দেয়াল ভেদ করে রুমের ভেতর দেখার ডিভাইস আবিষ্কার!

II অনলাইন ডেস্ক II

গোপনীয়তাকে আরো একবার চপেটাঘাত করল ইসরাইল। পেগাসাস স্পাইওয়্যারে আড়িপাতার ঘটনা কারো কাছে অজানা নয়। এবার দেয়ালের ওপার থাকা বস্তুতে সনাক্তকরণ প্রযুক্তি ব্যবহার করছে দেশটির মিলিটারী সদস্যরা।  

বিজনেস ইনসাইডার এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইসরায়েলি স্টার্টআপ ক্যামিরো-টেক রাডার ভিত্তিক এমন একটি ডিভাইস তৈরি করেছে যার মাধ্যমে দেয়ালের ওপারে থাকা ব্যাক্তিতে সনাক্ত করা যাবে সহজেই। এর ফলে কোন অভিযান বা যুদ্ধ ক্ষেত্রে ডিভাইসটির ব্যবহার বেড়ে যাবে। শুধু কি ব্যাক্তি, না, দেয়ালের অপর প্রান্তে থাকা পুরো জগত চাক্ষুশ দেখতে পাবেন ব্যবহারকারীরা।

ইন্ডিয়া টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, Xaver 1000 নামের এই গ্যাজেট দ্বারা ব্যাক্তি  স্থির, চলমান বা শুয়ে থাকলেও লাইভ অবজেক্ট দেখে নিতে পারবেন সেনারা। Camero-Tech বলছে, এর সি-থ্রু ডিভাইসটি 137 ফুট ব্যাসার্ধের মধ্যে সিমেন্ট এবং কংক্রিট সহ ‘সবচেয়ে সাধারণ দেওয়াল এবং উপকরণগুলির মধ্যে দিয়ে প্রবেশ করতে পারে। এই উদ্দেশ্যে এটি একটি পালস-ভিত্তিক, আলট্রা-ওয়াইডব্যান্ড রাডার ব্যবহার করে। 

ডেইলি মেইল এর প্রতিবেদন বলছে, সিস্টেমটি বর্তমানে ইসরায়েলি মিলিটারী সদস্যরা ব্যবহার করছে। ডিভাইসটিতে রয়েছে একটি দশ ইঞ্চির টাচস্ক্রিন, যা ব্যবহারকারীদের দেওয়ালের পিছনের জীবন্ত বস্তু দেখতে দেয়। ডিভাইসটির প্রযুক্তি এতটাই আপ-টু-ডেট, প্রাচীরের পিছনে থাকা ব্যক্তিটি একজন প্রাপ্তবয়স্ক, একটি শিশু বা একটি প্রাণী; এবং তারা দাঁড়িয়ে বা বসে আছে কিনা তাও বলেও দিতে সক্ষম। 

বিজনেস ইনসাইডার বলছে, স্টার্টাপ কোম্পানিটি Xaver 1000 গ্যাজেটে অ্যাডভান্সড এআই ভিত্তিক ট্রেকিং প্রযুক্তি ব্যবহার করেছে। ডিভাইসটি ব্যাক্তিতে সনাক্ত করে তার দূরত্বও পরিমাপ করে দেবে। 

১৬ কেজি ওজনের এই ডিভাইসটি একটি ফোল্ডেবল এ্যান্টেনার দ্বারা আবৃত ফলে যে কোন পরিবেশে এই ডিভাইসটি ব্যবহারা করা যায়।  

এর আগে ২০২০ সালের ডিসেম্বরে এরকম আরো একটি প্রযুক্তি আবিষ্কৃত হয়, যার মাধ্যমেও দেয়াল ভেদ করে দেখা যায়। কিন্তু সে প্রযুক্তি ছিল স্যাটেলাইট অরবিটিং আর্থ। সেই প্রযুক্তির নাম Capella-2 যার রাডার সিস্টেমের মাধ্যমে নিকটবর্তী কোন জায়গার হাই-রেজুলেশন ইমেজ তৈরি করা যায়। সিস্টেমটি দেয়াল পেনেট্রেট করতে যথেষ্ট পরিমাণ সক্ষম। 

Capella-2 ডিজাইন করেছিল Capella Space। সিস্টেমটি সিনথেটিক অ্যাপারেচার রাডার (Synthetic Aperture Radar (SAR) ব্যবহার করে ইমেজ তৈরি করে। 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগ এবং দুর্ঘটনার পরে অনুসন্ধান এবং উদ্ধার অভিযানের সময় এই জাতীয় প্রযুক্তি আসলে খুব কার্যকর হতে পারে।

কর্পোরেট সংবাদ/এআরএইচ

আরো খবর »

ট্রাম্পের বাসভবন থেকে গোপন নথি উদ্ধার

aysha akter

নিউ ইয়র্কে ছুরিকাঘাতে আহত সালমান রুশদি

উজ্জ্বল হোসাইন

যুক্তরাষ্ট্রে এফবিআই কার্যালয়ে হামলার চেষ্টা, পুলিশের গুলিতে বন্দুকধারী নিহত

Tanvina