সারাদেশ-টুকিটাকি

বাউফলে সেতু যেন মরণ ফাঁদ, ভোগান্তিতে সাধারন মানুষ

বাউফল প্রতিনিধি : পটুয়াখালীর বাউফলের নাজিরপুর ইউপির একটি সেতু ভেঙ্গে মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। এতে প্রায় তিন গ্রামের সহাস্রাধীক মানুষ ভোগান্তিতে পড়েছে। উপজেলার রামনগর-তাতেরকাঠী গ্রামের সেতুটি সংস্কার কিংবা নির্মাণের কোন উদ্যোগ না নেওয়ায় নতুন করে ভোগান্তিতে পড়েছে স্কুল কলেজ ও মাদ্রাসায় যাতায়াতকারী শিক্ষার্থীরা।

সরেজমিনে দেখা গেছে, গোলাবাড়ি ও নুরাইনপুর খালের ওপর নাসির হাওলাদার বাড়ির সামনের সেতুটি মাঝখান দিয়ে ভেঙে পড়ে আছে। সেতুটির অধিকাংশ স্লাবে ফাটল রয়েছে। অনেক স্লাব ভেঙে খালের মধ্যে পড়ে গেছে। ওইসব জায়গায় গাছের টুকরা দেওয়া রয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা মো. মজিবর বলেন, গত বছরের নভেম্বর মাসের মাঝামাঝি সময়ে সেতুটি ভেঙে পড়ে। এরপরে আর মেরামত কিংবা নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। এ কারনে উপজেলার সূর্য্যমনি, রামনগর ও তাতেরকাঠী এই তিন গ্রামের সহাস্রাধীক মানুষের যাতায়াতে সীমাহীন ভোগান্তি হচ্ছে। আনিচুর রহমান হাওলাদার (৫৩) নামে ভুক্তভোগি জানান, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মজিবুর রহমানের উদ্যোগে সেতুটি নির্মিত হয়। কিন্তু মাদকাসক্ত একটি চোর চক্র সেতুটির নিচের অংশের লোহার অ্যাঙ্গেল নিয়ে যাওয়ায় সেতুটি ভারসাম্য হারিয়ে ভেঙে পড়েছে।

নাসির উদ্দিন হাওলাদার (৫৫) বলেন, ‘সেতু ভেঙে পড়ে থাকায় শুধু যাতায়াতেই কষ্ট হচ্ছে তা নয়, খাল দিয়ে কোনো নৌকা কিংবা ট্রলার চলাচল করতে পারে না।’ তিনি দ্রুত সেতুটি মেরামত কিংবা নতুন সেতু নির্মাণের দাবি জানান।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) প্রায় পাঁচ বছর আগে সেতুটি নির্মাণ করে। উপজেলা প্রকৌশলী মো. সুলতান হোসেন বলেন, বিষয়টি তাঁর জানা নাই। সরেজমিন পরিদর্শণ করে খুব কম সময়ে মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরো খবর »

তীব্র স্রোতে বাংলাবাজার-শিমুলিয়ায় ফেরি চলাচল বন্ধ

Arif Hasan

ফতুল্লায় দেশীয় অস্ত্রসহ ‘পিচ্চি’ মিজান আটক

নেতাদের ছত্রছায়ায় কিশোর গ্যাং