আইন-আদালত

করোনামুক্ত হয়ে বাসায় ফিরলেন প্রধান বিচারপতি

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ও তার স্ত্রী ডালিয়া ফয়েজ করোনামুক্ত হয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) থেকে বাসায় ফিরেছেন।

বুধবার (২৬ জানুয়ারি) সুপ্রিমকোর্টের মুখপাত্র মোহাম্মদ সাইফুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, মঙ্গলবার বিকেলে তারা হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেছেন।

করোনাভাইরাস জনিত সংক্রমণে গত ১৯ জানুয়ারি প্রধান বিচারপতি বিএসএমএমইউ-তে ভর্তি হন। আগের দিন একই হাসপাতালে ভর্তি হন তার স্ত্রী ডালিয়া ফয়েজ।

প্রধান বিচারপতির অনুপস্থিতিতে গত বৃহস্পতিবার থেকে সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মো. নূরুজ্জামানের নেতৃত্বে পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চে ভার্চুয়ালি বিচারিক কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।

এর আগে করোনা সংক্রমণ জনিত উদ্ভূত পরিস্থিতির কারণে সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের বিচারিক কার্যক্রম ভার্চুয়ালি পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেয় সুপ্রিমকোর্ট প্রশাসন। প্রধান বিচারপতির আদেশক্রমে সুপ্রিমকোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবর স্বাক্ষরিত এ বিষয়ে ১৮ জানুয়ারি মঙ্গলবার পৃথক বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনা সংক্রমণ জনিত উদ্ভূত পরিস্থিতির কারনে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার আইন-২০২০ অনুযায়ী এবং এ সংক্রান্ত ইতোপূর্বে জারি করা প্র্যাকটিশ ডাইরেকশন অনুসরণ করে আপিল বিভাগে এবং হাইকোর্ট বিভাগের সকল বেঞ্চে ১৯ জানুয়ারি থেকে ভার্চ্যুয়ালি বিচারিক কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে করোনা সংক্রমণ জনিত পরিস্থিতির কারণে এর আগেও সুপ্রিমকোর্টের উভয় বিভাগের বিচারিক কার্যক্রম ভার্চ্যুয়ালি পরিচালিত হয়েছে। মাঝে করোনা সংক্রমণ কমে আসায় সুপ্রিমকোর্টের বিচারিক কার্যক্রম পর্যায়ক্রমে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসে। এখন করোনা সংক্রমণ ফের বৃদ্ধি পাওয়ায় সুপ্রিমকোর্টের বিচারিক কার্যক্রম ভার্চ্যুয়ালি পরিচালনার জন্য ফের সিদ্ধান্ত নিলো সুপ্রিমকোর্ট প্রশাসন। গত ৩১ ডিসেম্বর দেশের ২৩তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে শপথ নেন বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।

আরো খবর »

ঋণ জালিয়াতি: সোনালী ব্যাংকের এমডিসহ ৯ জনের ১৭ বছর কারাদণ্ড

দেশে তদন্তই শেষ হয়নি, ভারতে সাজা হয়ে গেছে !

Arif Hasan

পদ্মা সেতু নিয়ে টিকটক বানিয়ে অপপ্রচার, কারাগারে যুবক

Arif Hasan