বিনোদন

বড়পর্দায় ‘পুতুলনাচের ইতিকথা’, শশী চরিত্রে জয়া

বিনোদন ডেস্ক : পাঁচ বছর পর ফের বাংলা ছবির পরিচালনায় সুমন মুখোপাধ্যায়। মাঝে হিন্দি ছবি ও ওয়েব সিরিজ তৈরি করেছেন এমনকী বাংলা থিয়েটারেও অভিনয় করেছেন তবে বাংলা ছবি তৈরি করেননি তিনি। কলকাতা ছেড়ে এখন তাঁর স্থায়ী বাসস্থানও মুম্বাই। তবে ফের বাংলা ছবিতে ফিরলেন পরিচালক সুমন মুখোপাধ্যায়।

মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনপ্রিয় উপন্যাস ‘পুতুলনাচের ইতিকথা’ বড়পর্দায় তুলে আনবেন সুমন মুখোপাধ্যায়। ২০০৮ সাল থেকেই ছবির চিন্তা ভাবনা শুরু করেছিলেন তবে উপন্যাসের স্বত্ত্ব ও বাজেটের কারণেই অনেকটা সময় পেরিয়ে যায়। মূল উপন্যাসের সময়কালকে ছবিতে পরিবর্তন করেছেন পরিচালক। তিনের দশকের শেষ দিক থেকে চারের দশকের শুরু, এই সময়কালকে ফ্রেমবন্দি করবেন পরিচালক, যদিও উপন্যাসের সময়কাল ছিল আরেকটু পিছনে। সুমন মুখোপাধ্যায়ের বাবা অরুণ মুখোপাধ্যায় মঞ্চস্থ করেছিলেন এই উপন্যাশ। সেই নাট্যরূপই পরিচালকের ছবি তৈরির প্রথম অনুপ্রেরণা।

Abir-Jaya-Parambrata: বড়পর্দায় 'পুতুলনাচের ইতিকথা', শশী-কুসুম-কুমুদের চরিত্রে আবীর,জয়া,পরমব্রত

উপন্যাসের তিন মুখ্য় চরিত্র শশী, কুসুম ও কুমুদের চরিত্রে অভিনয় করবেন আবীর চট্টোপাধ্যায়, জয়া আহসান ও পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়। ছবিতে শশী চরিত্রটিই বেশি গুরুত্ব পাবে বলে জানান পরিচালক। তাঁর মতে, মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের লেখা চরিত্রের মধ্যে অন্যতম জোরালো চরিত্র শশী। কলকাতায় পড়াশোনা করা শশী ল্ডনে গিয়ে উচ্চশিক্ষা নিতে চায় কিন্তু আটকে পড়ে গ্রামে। জীবনের নানা সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে সমস্যার মুখোমুখি হতে হয় তাঁকে।

পরিচালকের মতে, গত শতাব্দীর বুদ্ধিজীবী শিক্ষিত সমাজ নানা কারণে জীবের সঙ্গে অনেক বোঝাপড়া করেছে। যা তাঁদের বলার ছিল তাঁরা সেটা বলেনি। যার ফলস্বরূপ আমরা এখন এই ভয়ঙ্কর ধর্মীয় উন্মাদনা, স্বৈরতন্ত্রের উত্থান দেখছি। শশীর চরিত্রটা পরিচালকের কাছে ইন্টেলেকচুয়াল ফেলিয়রের একটা প্রতীক। যে সিদ্ধান্ত তার নেওয়ার ছিল, তা নিতে ব্যর্থ হয় সে। সূত্র-জিনিউজ।

আরও পড়ুন :

ইচ্ছাকৃত করোনায় সংক্রমিত হয়ে সংগীত শিল্পীর মৃত্যু

বাড়ির বাইরে না বেরিয়েও করোনায় আক্রান্ত তনুশ্রী

আরো খবর »

কেজিএফ ৩: রকির সাম্রাজ্যে আসছেন হৃতিক

aysha akter

ক্যারিয়ারের ২৩ বছরে শাকিব : প্রথমে সাফল্য পায়নি, তবু হাল ছাড়িনি

বক্স অফিসে দাঁড়াতে পারছেনা কঙ্গনার ‘ধাকাড়’

Arif Hasan