Corporate Sangbad | Online Bangla NewsPaper BD
বিনোদন ভিডিও গ্যালারী

ট্রোল হতে হতে গণ্ডার হয়ে গেছি: নুসরাত ফারিয়া

বিনোদন ডেস্ক : বাংলাদেশের জনপ্রিয় নায়িকা ও গায়িকা নুসরাত ফারিয়া। সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে তাঁর মিউজিক ভিডিও হাবিবি, একদিনেই সেই ভিডিও অনলাইনে দেখেছেন প্রায় সাড়ে ৪ লাখ দর্শক। সেই মিউজিক ভিডিও নিয়েই ভারতের জি নিউজ’র সঙ্গে কথা বলেছেন নুসরাত। পাঠকদের জন্য সাক্ষাৎকারটি তুলে ধরা হলো-

প্রশ্ন: মিউজিক ভিডিও নাকি সিনেমা ফারিয়ার পছন্দের তালিকায় কে এগিয়ে?

নুসরাত ফারিয়া: দুটোই। সিনেমা ততোটাই গুরুত্বপূর্ণ যতোটা মিউজিক ভিডিওতে অভিনয় করা বা গান করা। আমি দুটোর মধ্যে কোনও ভাগ করি না। এখন কনটেন্টই শেষ কথা। ভালো কনটেন্ট হলে তা সিনেমা হোক বা মিউজিক ভিডিও দর্শক তা গ্রহণ করবেই।

প্রশ্ন: একদিনেই ৪ লক্ষের বেশি ভিউ, কোথা থেকে শুরু ‘হাবিবি’-র চিন্তাভাবনা?

নুসরত ফারিয়া: হাবিবি প্রথমে একটা সফট রোমান্টিক গান ছিল। আমি ও আমার টিম এই গানের দুই কম্পোজার ও গীতিকার আদিব ও নুর নবিকে বলি গানটিকে ডান্স নম্বর বানাতে হবে। তারপর এটা নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়। আমি চাইনি যে গানটা তাঁর সফটনেস হারিয়ে ফেলুক। সুর মাথায় রেখেই গানটা একটু পরিবর্তন করা হয়। আমার বিশ্বাস ছিল যে এই গানটা শ্রোতারা পছন্দ করবে। ভিডিওটার জন্য আমাকে অনেক ডায়েট করতে হয়েছে, কারণ লকডাউনে বাড়িতে বসে অনেক খেয়েছি। এরপর এই ভিডিওর জন্য অনেক ওয়ার্ক আউট করতে হয়েছে, তারই মাঝে আমার এলএলবি-র ফাইনাল ইয়ারের পরীক্ষা ছিল। পরীক্ষা শেষ হওয়ার পরের দিনই হাবিবির শুট করেছি আমরা।

প্রশ্ন: নুসরাত ফারিয়াকে দেখে মনে হয় না তিনি খেতে ভালোবাসেন?

নুসরাত ফারিয়া: আমি খেতে খুবই ভালোবাসি। আমার ইনস্টাগ্রাম ফলো করলেই দেখতে পাবেন আমি কত খাই। আমি আসলে জীবনটা উপভোগ করতে চাই। মন ভরে খাবো পাশাপাশি ওয়ার্ক আউটও করব। আমার মনে হয় না কেউ না খেয়ে থাকে, যদি কেউ বলে থাকে সে কিছু খায় না তাহলে সে মিথ্যা কথা বলছে। আমি খাওয়ার পাশাপাশি ওয়ার্ক আউটে বিশ্বাসী।

প্রশ্ন: আপনি আগেও মিউজিক ভিডিওতে গান গেয়েছেন, শ্রোতাদের থেকে কেমন প্রতিক্রিয়া পেয়েছেন?

নুসরাত ফারিয়া: যখন লাইভ শো করতে যাই তখন শ্রোতাদের থেকে যে ভালো ভালো প্রতিক্রিয়া পাই তা আমি কথায় প্রকাশ করতে পারব না। লাইভ শো’তে শ্রোতারা আমার সিনেমার গানের পাশাপাশি মিউজিক ভিডিওর গানও শুনতে চাই। আমি আগের গান দুটোতেও প্রচুর ভালো প্রতিক্রিয়া পেয়েছি। এটা নিয়েও বেশ আশাবাদী। মিউজিক ভিডিও এখন সারাবিশ্বে ট্রেন্ডিং। বলিউডে অনেকদিন ধরেই মিউজিক ভিডিও বেশ জনপ্রিয়। বাংলাতেও সেই ট্রেন্ড এসেছে। অনলাইনে মিউজিক ভিডিও রিলিজ করছেন অনেকেই। এবার অনলাইন বা সোশ্যাল মিডিয়া যেকোনো কনটেন্ট আপলোড করলে তা প্রশংসাও পেতে পারে আবার ট্রলও হতে পারে।

প্রশ্ন: সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায়শই ট্রল হতে দেখা যায় আপনাকে, ট্রল কতটা প্রভাব ফেলে আপনার জীবনে?

নুসরাত ফারিয়া: আমার মনে হয়, আমি গণ্ডার হয়ে গেছি। এখন আর কোনও ট্রল গায়ে লাগে না। আমি আর পাত্তা দিই না। নিজের কাজ করে যাচ্ছি। আমি শুধু ভাবি যারা এই ট্রল করে তারা কতখানি বেকার। তবে আমি যখন কেরিয়ার শুরু করেছি তখন থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ার বিশাল প্রভাব। তাই এগুলো জেনে বুঝেই আমি কেরিয়ার শুরু করেছি।

প্রশ্ন: আগামী দিনে টলিউডের কোন ছবিতে দেখা যাবে আপনাকে?

নুসরত ফারিয়া: বিরসা দাশগুপ্তের আগামী ছবি বিবাহ অভিযান ২-য়ে অভিনয় করতে চলেছি। এছাড়াও পরিচালক রাজা চন্দের সঙ্গে একটি ছবির কথা চলছে।

আরো খবর »

প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে মাহির ভাইরাল ফোনালাপ নিয়ে যা বললেন ইমন

উজ্জ্বল হোসাইন

বিমানবন্দরে আটকে দেয়া হল জ্যাকলিনকে

উজ্জ্বল হোসাইন

মরুর বুকে স্বামীর সঙ্গে রোমান্টিক মাহি

উজ্জ্বল হোসাইন