Corporate Sangbad | Online Bangla NewsPaper BD
অর্থ-বাণিজ্য

হিলি-বুড়িমারী-বাংলাবান্ধা শুল্ক স্টেশনের সক্ষমতা বাড়ছে

অর্থ-বাণিজ্য ডেস্ক : দেশে পণ্য আমদানি-রপ্তানি সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করতে ১৫টি স্থল শুল্ক স্টেশনে পর্যাপ্ত অবকাঠামো না থাকায় ব্যবসায়ীরা প্রয়োজনীয় সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। ফলে রোধ করা যাচ্ছে না সীমান্তবর্তী এলাকার চোরাচালান।

দেশে বর্তমানে মোট ১৮১টি এলসি স্টেশন রয়েছে। এর মধ্যে ১৫টি দিয়ে আমদানি-রপ্তানি হয়। এগুলোর মধ্যে উত্তরাঞ্চলের এলসি স্টেশনগুলোর ভৌত অবকাঠামো সুবিধা নেই বললেই চলে। এসব কারণে সেখানে আমদানি-রপ্তানি আশানুরূপ হচ্ছে না বলে জানিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড।

এমন বাস্তবতার নিরিখে দেশের ৩ স্থল শুল্ক স্টেশনের অবকাঠামো সুবিধা বাড়ানোর প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার। ৮০ কোটি ৬১ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘হিলি, বুড়িমারী ও বাংলাবান্ধা এলসি স্টেশনের ভৌত অবকাঠামো নির্মাণ’ শীর্ষক প্রকল্প গ্রহণ করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ।

প্রকল্পটি যৌথভাবে বাস্তবায়ন করবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ও গণপূর্ত অধিদপ্তর। এরই মধ্যে প্রকল্পটি একনেক বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনও পেয়েছে।

এ ব্যাপারে রাজস্ব বোর্ড বলছে, অর্থনীতির আকার বাড়ছে। বাড়ছে দেশের আমদানি-রপ্তানি। প্রতি বছরই রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা বাড়ায় এনবিআরের কর্মকাণ্ডও বিস্তৃত হচ্ছে। এসব বিবেচনায় নিয়ে প্রকল্পটি প্রস্তাব করা হয়েছে।

সরকারি এ সংস্থাটি বলছে, চলতি বছর শুরু হয়ে প্রকল্পের কাজ শেষ হবে ২০২৪ সালের জুনে। এটি বাস্তবায়ন হলে এলসি স্টেশনগুলোতে কাজের সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরি হবে, রাজস্ব আদায়ও বাড়বে।


আরো খবর »

হিলিতে কমেছে পেঁয়াজের দাম

Tanvina

বিলাসবহুল ১১০ গাড়ি নিলামে তোলার সিদ্ধান্ত নিল এনবিআরের

Tanvina

ইভ্যালির ওয়েবসাইট-অ্যাপ বন্ধ

উজ্জ্বল হোসাইন