28.9 C
Dhaka
মে ১৩, ২০২১
Corporate Sangbad | Online Bangla NewsPaper BD
আইন-আদালত শিরোনাম শীর্ষ সংবাদ

২৬ জনের প্রাণহানি : স্পিডবোট মালিক ও চালকের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক : মাদারীপুরের শিবচর উপজেলায় বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌরুটের কাঁঠালবাড়ী ঘাটসংলগ্ন এলাকায় বাল্কহেডের সঙ্গে স্পিডবোটের সংঘর্ষে ২৬ জন নিহতের ঘটনায় মামলা হয়েছে। সোমবার (৩ মে) গভীর রাতে শিবচর থানায় মামলাটি করে নৌপুলিশ। এতে স্পিডবোটের মালিক, চালক ও ঘাট ইজারাদারসহ চারজনকে আসামি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৪ মে) সকালে শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিরাজ হোসেন গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তবে ওসি চালক ছাড়া অন্য আসামিদের বিস্তারিত পরিচয় জানাননি।

গতকাল সোমবার সকালে কাঁঠালবাড়ী ঘাট এলাকায় দাঁড়িয়ে থাকা বাল্কহেডে ধাক্কা দিয়ে উল্টে যায় যাত্রীবোঝাই স্পিডবোট। সেখান থেকে একে একে উদ্ধার করা হয় শিশুসহ ২৫ জনের মরদেহ। হাসপাতালে নেওয়ার পর মারা যান আরও একজন। জীবিত উদ্ধার করা হয় স্পিডবোটের চালকসহ পাঁচজনকে।

শিমুলিয়ার নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী পরিচালক শাহাদাত হোসেন জানান, স্পিডবোটটির কোনো নিবন্ধন ছিল না। এর চালকের ছিল না দক্ষতার সার্টিফিকেট।

আহত চালক শাহ আলমকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তাঁকে মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়েছে পুলিশ।

এ ব্যাপারে মাওয়া নৌ-ফাঁড়ির পরিদর্শক সিরাজুল কবির দাবি করেন, স্পিডবোটটি শিমুলিয়া ঘাট থেকে ছেড়ে যায়নি। লকডাউনের শুরু থেকে অসাধু একটি চক্র ঘাট এলাকাসংলগ্ন চর থেকে অবৈধভাবে যাত্রী তুলে চলাচল করছিল। সকালে ওই স্পিডবোটটি এমনই একটি চর থেকে ছেড়ে গেছে।

শিবচর থানার ওসি জানান, নিহত ২৬ জনের পরিচয় শনাক্ত শেষে সোমবার রাতেই পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

যাঁরা মারা গেছেন তাঁরা হলেন- মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার মৌলতীকান্দি এলাকার আজিত মোল্লার ছেলে আলম মোল্লা (৩৮), একই উপজেলার গুয়াতলা এলাকার আদম আলী মোল্লার ছেলে শাহাদাত হোসেন (৪২), রাজৈর উপজেলার শঙ্কারদি এলাকার তারা মিয়া মীরের ছেলে তাহের মীর (৩০), সদর উপজেলার শ্রীনদী এলাকার আবদুল মান্নান মোল্লার ছেলে আব্দুল আহাদ (৩০)।

খুলনার তেরোখাদা উপজেলার পারুফল এলাকার মৃত আলম মিয়ার ছেলে মনির মিয়া (৩৮), মনির মিয়ার স্ত্রী হীনা বেগম (৩৬), তাদের মেয়ে রুমি আক্তার (৩) ও সুমি আক্তার (৫)।

বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলার আশা এলাকার রক্তু হোসেনের ছেলে সাইদুল হোসেন (২৭), একই উপজেলার পূর্বষট্টি এলাকার সাদেক বেপারীর ছেলে রিয়াজ হোসেন (৩৩), সাইফুল ইসলাম (৩৫), একই উপজেলার মনির হোসেন (৩৫), বরিশালের বন্দর থানার তেদুরিয়া এলাকার মো. আলী আহমেদের ছেলে আনোয়ার চৌকিদার (৫০), বানারীপাড়া উপজেলার হাশেম বেপারীর ছেলে আলাউদ্দিন বেপারী (৪৫)।

কুমিল্লার তিতাস উপজেলার ইউসূফপুর এলাকার মৃত আবদুল মান্নানের ছেলে জিয়াউর রহমান (৩৮), দাউদকান্দি উপজেলার মাইখারকান্দি এলাকার মৃত আবদুল হাশেমের ছেলে মো. কাওসার আহমেদ (৪০) একই এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে মো. রুহুল আমিন (৩৬)।

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার মাইগ্রো এলাকার মৃত পান্নু সরদারের ছেলে আরজু সরদার (৪০) এবং আরজুর দেড় বছর বয়সী ছেলে ইয়ামিন। চাঁদপুরের মতলব উত্তর থানার মোহনপুর এলাকার মৃত আলী হোসেন বেপারীর ছেলে মো. দেলোয়ার হোসেন (৪৫)। নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার রাজাপুর এলাকার হাফিজুর রহমানের ছেলে জোবায়ের মোল্লা(৩০)। মুন্সিগঞ্জের সাতপাড় এলাকার চান মিয়া শেখের ছেলে সাগর শেখ (৪১)।

ঢাকার পীরেরবাগ এলাকার নুরে আলমের ছেলে খোরশেদ আলম (৪৫)। ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার রাজাবাড়িয়া এলাকার মৃত আব্দুল কুদ্দুস শিকদারের ছেলে নাসিরউদ্দিন (৪৫)। পিরোজপুর জেলার সদর উপজেলার চরখানা এলাকার মো. ওহিদুর ছেলে বাপ্পী (২৮), ভান্ডারিয়া উপজেলার পসারিয়াবুনিয়া এলাকার রঞ্জন অধিকারীর ছেলে জনি অধিকারী (২৬)।


আরো খবর »

আল-আকসা মসজিদে ইসরায়েলের হামলায় প্রধানমন্ত্রীর নিন্দা

উজ্জ্বল

করোনায় আরও ৪০ জনের মৃত্যু

উজ্জ্বল

বাবুল আক্তার ৫ দিনের রিমান্ডে

উজ্জ্বল